মার্কেটিং বর্ণমালা ।।ডিজিটাল মার্কেটিং

মার্কেটিং-বর্ণমালা

Embed: Embed শব্দটির অর্থ হলো বসানো বা সংস্থাপন করা।  Embed হলো এক ধরনের ডিজিটাল কোড যেটি কপি করে অন্য কোন  মাধ্যমে বসালে বা স্থাপন করলে এক সাইটের কন্টেন্ট অন্য সাইটি  সাইটে কপি হয়ে যায় ।

বিষয়টি ক্লিয়ার করা যাক । ইউটিউব ভিডিও তে  শেয়ার বাটন এ ক্লিল করলে Embed অপশন দেখতে পাওয়া যাবে  ।সেখানে ক্লিক করলে নিচের ছবির মত কোড পাব ।যা অন্য কোন সাইটে বসালে  উক্ত কন্টেন্ট কপি হয়ে যাবে ।সাধারণত শেয়ার করার কাজে Embed ব্যবহার করা হয় ।ছবি ,লেখা ,ভিডিও সব কিছুই  Embed করা যায়(যদি অপশন থাকে )।

 

Engagement : কোন একটি পোস্ট বা এ্যাডের লাইক,কমেন্ট ,শেয়ার কে সাধারণত Engagement বলে ।উল্লেখ্য যে  কেউ যদি আপনার লোকেশান খোজে বা ট্যাগ করে তাও Engagement এর মধ্যে পড়ে ।ডিজিটাল মার্কেটিং Engagement কে ব্যবহার করা হয় কত জন লোক একটি নির্দিষ্ট এ্যাড বা পোস্ট এ লাইক কমেন্ট বা শেয়ার করেছে তা জানার জন্য ।

 

External Link: External Link  হলো একটি হাইপারলিংক যার মাধ্যমে একটি সাইট  অন্য একটি সাইট কে রেফার বা ভ্যালু প্রদান করে ।  সহজ কোথায় বললে কেউ যদি তার সাইটে অন্য কোন সাইটের লিংক বা ঠিকানা যুক্ত করে তবে সেটাই External Link হিসাবে গণ্য করা হয় ।External Link এর মাধ্যম এক সাইট হতে অন্য সাইটে ট্রাফিক ট্রান্সফার করা হয় ।

 

Internal link: Internal Link আরও একটি হাইপারলিংক যার মাধ্যমে একটি সাইটের এক পেজ থেকে অন্য পেজ কে নির্দেশ করা হয় ।

মূল কথা হলো ট্রাফিক এক সাইট হতে অন্য সাইটে পাঠানোর জন্য External Link  ব্যবহার করা হয় ।আপর পক্ষে একটি সাইটের এক পেজ থেকে অন্য পেজে ট্রাফিক পাঠানোর জন্য Internal link ব্যবহার করা হয় ।

FAQ: এর পূর্ণরুপ হলো  Frequently Asked Questions। কোন একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের প্রশ্নের তালিকা যেগুলো বার বার জিজ্ঞাসিত করা হয় ,তাদের সমষ্টিকে Frequently Asked Questions বলা হয় ।

 

FTP:  File Transfer Protocol হলো ইন্টারনেটের মাধ্যমে  ফাইল ট্রান্সফার করার মাধ্যমে ।FTP এর মাধ্যমে সাধারণত সার্ভারে তথ্য জমা রাখা হয় এবং প্রয়োজনীয় তথ্য ডাউনলোড করা হয় ।

 

Funnel: ডিজিটাল মার্কেটিং এ Funnel একটি বহুল ব্যবহৃত শব্দ ।অনেকে এটা কে সেলস ফানেল,ক্রেতার ক্রয় জার্নি বা বিক্রয়ের ধাপ নানান নামে অভিহিত করে থাকে ।

প্রকৃতপক্ষে ফানেল হলো একটি নীল নকশা বা পরিকল্পনার বিভিন্ন ধাপের সমষ্টি ।  সম্ভ্যাব্য ক্রেতাগণকে কতগুলো ধাপে পেইড ক্রেতাতে রুপান্তর করা হবে তার অগ্রিম পরিকল্পনাকেই সেলস ফানেল বলা হয় ।

এক কথায় কাস্টমারের ক্রয় জার্নি  বিভিন্ন ধাপই হলো সেলস ফানেল ।

Hashtag: সাধারণত Hashtag বলতে একটি মূল শব্দ বা একাধিক শব্দের সমষ্টকে বুঝায় যা # সাইন দ্বারা শুরু হয় এবং শব্দের মাঝে কোন ফাকা জায়গা বা স্পেস রাখা হয় না ।বিভিন্ন টপিক কে ক্যাটাগরি করার জন্য এটি ব্যবহার করা হয় । যেমন #smart_b_digital_marketing

Header Image: Header Image বলতে পুরো স্ক্রিন জুড়ে যে ইমেজ থাকে তাকে বুঝায় ।এর সাথে লগো বা নেভিগেশন বার যুক্ত করা যায় ।সাধারণত ভিজুয়্যালি কোন মেসেজ প্রদানের জন্য Header Image ব্যবহার করা হয় ।

 

 

 

Heading Tag: কোন একটি বিষয় কি নিয়ে লেখা হয়েছে তা বোঝার জন্য ,শিরোনাম দেওয়া হয় যাকে টাইটেল বলা হয় ।এখন কথা হচ্ছে সে বিষয়টি যদি অনেক বড় হয় ,তবে তা বিভিন্ন প্যারা করে লেখা হয় এবং বিভিন্ন প্যারা বোঝার সুবিধার্তে প্রত্যেক প্যারার জন্য একটি করে শিরোনাম দেওয়া হয় ,আর এ শিরোনামের সমষ্টিকে Heading Tag বলা হয় । 

Heading Tag গুলোকে বিভিন্ন নামে ডাকা হয়  H1, H2, H3, H4, H5, and H6 ।

 

 

HTML: Hypertext Markup Language একটি স্ক্রিপটিং টুলস বা ভাষা। যা ওয়েব পেইজে ডকুমেন্ট ডিজাইন এবং প্রর্দশন এর কাজে ব্যবহার করা হয় ।আমরা ওয়েব পেইজে যে লেখা বা ডকুমেন্টগুলো দেখতে পাই তা HTML এ করা ।

 

 

HTTPS: HTTPS এর পূর্ন রূপ হলো  Hypertext Transfer Protocol Secure (HTTPS) ।যা Hypertext Transfer Protocol (HTTP) এর একটি এক্সটেনশন ।যোগাযোগ প্রটোকল Transport Layer Security (TLS) এর পূর্বে  Secure Sockets Layer (SSL). যক্ত করা হয় ।যার ফলে একটি সাইটের পূর্বে HTTPS লেখা টা দেখা যায় ।এটির প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে তথ্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা ।এ ছাড়া এটি দ্বারা সাইটি ব্রাউজের জন্য নিরাপদ কিনা তাও বোঝানো হয় ।

 

 

Impressions:  একটি পোস্ট বা এ্যাড একজন গ্রাহকের কাছে যতবার উপস্থাপিত হয় ততোবারকেই এক একটি  Impressions বলা হয়।

 

 

 

Inbound Link:  ইনবাউন্ট লিংক হলো একটি হাইপার লিংক যার মাধ্যমে অন্য সাইট থেকে ট্রাপিক নিজের সাইটে আসে।

 

Index:  Index এর প্রকৃত অর্থ হলো সূচিবদ্ধ করা বা তালিকা করা । পেজ বা কন্টেন্ট সূচি  বা তালিকা অনুসারে সাজিয়ে রাংকিং করাটাই হলো Index ।

 

Influencer: যাদের মাধ্যমে গ্রাহক দের প্ররোচিত করা হয় তাদেরকেই  Influencer বলা হয় ।

যেমনঃসাকিব আল হাসান একজন Influencer।

Keyword: Keyword হলো কিছু শব্দ বা শব্দের সমষ্টি যার মাধ্যমে সার্চ ইঞ্জিনে কোন বিষয় খোজা হয় ।

যেমন:  বাংলাদেশের গ্রামের সংখ্যা ।মোবাইল। 

বাংলাদেশের গ্রামের সংখ্যা এবং মোবাইল দুইটি আলাদা কি-ওয়্যার্ড।

 

Landing Page: Landing Page সাইটের যে পেজের মাধ্যমে গ্রাহকে আকৃষ্ট করা হয় বা একটি সাইটের প্রথম পেজই কেই Landing Page বলা হয়।ল্যান্ডিং পেজ একটি সুনির্দিষ্ট ওয়েব পেজ যার উদ্দেশ্য থাকে কাস্টমারকে কোন একটি সুনির্দিষ্ট অফার, পন্য বা সেবাতে নিবন্ধিত বা সরাসরি সংগঠিত করা

 

 

Lead: লিড বলতে সম্ভাব্য ক্রেতাগণকে বুঝায় যারা কোন বিশেষ পণ্য বা সেবার প্রতি আগ্রহ দেখায় ।

যেমনঃ কোন একজন অডিয়েন্স একটি পণ্যের এ্যাড দেখার পরে পণ্যটি সম্পর্কে জানতে চাইল ,তাহলে উক্ত অডিয়েন্স কে আমরা লিড হিসাবে ধরতে পারি ।

 

lead magnet:    lead magnet হলো বিভিন্ন অফার প্রয়োগ করে সম্ভাব্য গ্রাহকের ইনফরমেন সংগ্রহ করা ।

Lead Nurturing:  Lead Nurturing ফানেলের প্রতিটি স্টেজে গ্রাহলের সাথে সম্পর্ক উন্নয়ন কে ,Lead Nurturing বলে।

 

Learning Management System (LMS) 

 

Link Building:  Link Building হলো নিজের ওয়েব সাইটের লিংক অন্য ওয়েব সাইটের মাধ্যমে প্রমোট করার কৌশল হলো ,Link Building 

 

Long tail keyword: যে  keyword  গুলো অধিক স্পেসিফিক  এবং বড় তাদের Long tail keyword বলে।

 

LTV লাইফ টাইম ভ্যালু  = (average customer spend) x (number of times the customer is expected to repeat the purchase over one year) x (average length of the relationship, in months or years).

Marketig automation: Marketing Automation  এমন একটি প্লাটফর্ম যেটা মার্কেটাররা প্লানিং ,সমন্বয় সাধন এবংমার্কেটিং ক্যাম্পেইন ফলাফল পরিমান করার জন্য ব্যবহার করে ।

 

Meta description: একটি পেজের কন্টেন্ট এর সারাংশ বা সংক্ষিপ্ত বর্ণ্না ই হল ,meta description।

Monthly Recurring Revenue মাসিক পুনরাবৃত্তি আয় ই হলো MRR.

 

Navigation: বিভিন্ন পেজে অডিয়েন্স রা কিভাবে ব্রাউজ করবে তার দিক নির্দেশনা হল Navigation।

 

On page: সার্চ ইঞ্জিনে র‍্যাংক করানোর জন্য প্রতিটি পেজ আপটিমাইজ বা গোছানো উপস্থাপনা কে On page এস ই বলে । এক কথায় পেজ র‍্যাংক করানোর জন্য একটি সাইটে অভ্যন্তরে  যত ধরনের কাজ করা হয় তাই On page এস ই ও।

 

Off page: সাইট কে র‍্যাংক করানোর জন্য সাইটের বাইরে যত ধরনের কাজ করা হয় তাকে Off page এস ই ও বলে .

 

Page view:একটি ওয়েবসাইটে পেজে যখন কোন ট্রাফিক যায় ,তখন তা পেজ ভিউ হিসাবে গণ্য করা হয় ।

 

Permalink: যে লিংক সাইটে অনেক দিন অপরিবর্তিত থাকে তাকে permalink বলে ।

 

PPC= pay per click 

PPA =(Pay Per Action) 

 

Plugin: এমন একটি সফট ওয়্যার যেখানে প্রয়োজনীয়  অনেক ফাংশন থাকে ।

 

Pop up: পপ আপ একধরনের অনলাইন বিজ্ঞাপন ।

 

Qualified Lead: অডিয়েন্সের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে যখন কোন সম্ভাব্য গ্রাহক নির্ধারণ করা হয় তখন তাকে Qualified Lead বলে ।

 

Quality Score: সার্চ ইঞ্জিন কতৃক পে পার ক্লিক বা কিওয়্যার্ড জন্য যে রেটিং দেওয়া হয় তাই ,Quality 

Score ।

 

Response Rate: নির্দিষ্ট অ্যাাকশনের জন্য শতকরা কত জন সাড়া দেয় তাই রেসপন্ড রেট ।

 

 Render:  যে কোন ডিভাইসে গ্রাফিক্যাল কোন কিছু এডজাস্ট মেন্ট করাটাই রেনডার ।

 

Responsive Design:   হল এমন একটি ডিজাইন পদ্ধতি যার  মাধ্যমে গ্রাহকের আচরন এবং পরিবেশের উপর নির্ভর করে বিভিন্ন ডিভাসের সাথে সমন্বয় করে ডিজাইন তৈরি করা হয় ।

 

Re-marketing: যে সব অডিয়েন্স পূর্বে কোন ব্যবসায় সংযুক্ত ছিল তাদের কে নিয়ে পুনরায় মার্কেটিং কার্যক্রম পরিচালনাকে re-marketing বলে ।

 

Root Domain:  www. বাদ দিয়ে যে ডোমেইওন অংশ থাকে তাকে root domain বলে ।

 

Return on Investment (ROI)

 

RSS: যার মাধ্যমে অটোমেটিক ভাবে ডাটা এক জায়গা থেকে অন্য জায়গা একত্রিত হয় ।

 

SAAS: অনলাইন সফটওয়্যার । Software as a Service. . 

 

 SEM: Search Engine Marketing 

Search engine একটি সফটওয়্যার যার মাধ্যমে অনলাইনে কোন কিছু খোজা হয় ।

SEO: Search Engine Optimize 

SERP:  Search Engine Result Page 

 

Sitemap: একটি ওয়েবসাইটে কতটি পেজ গুরুত্বপূর্ন তা গুগলকে জানানোর জন্য Sitemap ব্যবহার করা হয় ।

SMM:   Social Media Marketing 

 

Sub Domain:  মূল ডোমেইন এর আন্ডারে যত গুলো ডোমেইওন থাকে তাদের সাব ডোমেইন বলে ।

Social Proof:  যে ইনফরমেশন গুলো সামাজিক ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলে সেগুলোই Social Proof ।

 

Spider:গুগল বিভিন্ন পেজের তথ্য রিড করার জন্য এক ধরনের বট ব্যবহার করে আর এটাই হলো spider.

 

Timestamp:  কন্টেন্ট  প্রকাশ করার সময় কেই timestamp বলে ।

 

UI: একটি সাইটের কোথায় কি থাকবে সেটাই নির্ধারণ করাটাই হচ্ছে UI  ।এটির মাধ্যমে মেশিন এবং মানুষের মধ্যে ইন্টারঅ্যাকশন হয় ।

 

Ux:  অডিয়েন্স একটি ওয়েবসাইট নিয়ে কি ভাবছে বা   কেমন অনুভব করছে তাইux।

 

Unique visitor: রিপোর্টিং দিবসের মধ্যে যারা একবার হলো ও সাইট ভিজিট করে তারা unique visitor।

User Generated Content (UGC) একটি মার্কেটিং কৌশল ।

 

Uniform Resource Locator (URL)

 

What You See Is What You Get  = WYSIWYG

 

User Retention: যে সব ক্রেতা বর্তমানে কোন প্রোডাক্ট বা সার্ভিস ব্যবহার করছে ,ভবিষ্যৎ এ করবে এবং আশেপাশে  কাছের সকল কে সংশ্লিষ্ট প্রোডাক্ট বা সার্ভিস ব্যবহার করার জন্য রেফার করবে ,তাদের কে User retention হিসাবে গণ্য করা হয় ।

অন্যভাবে বলা যায় যে ,কাস্টমার ধরে রাখার প্রক্রিয়া টাই হচ্ছে ইউজার রিটেনশান ।

 

Inbound Marketing:  কনটেন্ট মার্কেটিং, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং, সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশন এবং ব্র্যান্ডিংয়ের মাধ্যমে গ্রাহকদের পণ্য এবং সেবার প্রতি আকর্ষণ করার কৌশল কে ইনবাউন্ড মার্কেটিং বলে ।

 

Outbound Marketing:  বিজ্ঞাপণ,প্রচার,বা জনসংযোগের মাধ্যমে ক্রেতা বা অডিয়েন্স কে আর্কষণ করাকে আউটবাউন্ড মার্কেটিং বলে ।

 

Domain: ওয়েব সাইটের নামকেই ডোমেইন বলা  হয় ।এক কথায় ইন্টারনেটে যে নামে কোন ওয়েবসাইটে খুজে পাওয়া যায়,তাকে Domain বলা হয় ।

যেমনঃsmartb.com  এখানে smartb.com হলো ডোমেইন।

 

Hosting:  ওয়েব হোস্টিং বা হোস্টিং হচ্ছে এক প্রকার বিজনেস পরিসেবা যার মাধ্যমে কোন ওয়েবসাইটের তথ্য স্টোরেজ , প্রয়োজনীয় তথ্য আদান প্রদান এবং নিরাপত্তা দেওয়া হয় ।

কুল ট্রাফিক 

*যারা আমাদের ব্রান্ডের সাথে পরিচিত নয়।

*যাদের সাথে আমাদের কোন এনগেজমেন্ট নেই।

*যারা আমাদের টার্গেট কাস্টমার কিন্তু কিনতে প্রস্তুত নয়।

HOT /WARM

*যারা আমাদের রির্টানিং ভিজিটর

*যাদের সাথে অতীতে এনগেজ হয়েছে ।

*যারা আমাদের ব্রান্ড এবং পণ্যের সাথে পরিচিত।

*যারা অন্যদের দ্বারা রেফার করা।

 

পেইড মিডিয়াঃ যে মিডিয়াতে টাকার বিনিময়ে এড দেওয়া যায় সেটিই পেইড মিডিয়া ।

যেমনঃ ফেসবুক,গুগল ,ইউটিউব ইত্যাদি  হলো পেইড মিডিয়া ।

 

ওনড মিডিয়া: নিজের প্লাটফর্ম ব্যবহার করে ক্যাম্পেইন করাকে ওনড মিডিয়া।

যেমনঃ নিজের কোন ব্লগ ।

 

 

Earn media:  যেখানে আমার ডিরেক্ট কোন কন্ট্রোল নেই কিন্তু লোকজন আমাকে নিয়ে কথা বলছে সেটাই earn media.

যেমনঃ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া হলো Earn media।

Domin Athority:  কোন নির্দিষ্ট বিষয় বা ইন্ডাস্টির সাথে ওয়েবসাইট টি কতটা প্রাসংগিক তাকে ডোমেইন অথোরিটি বলে .

যেমনঃ ডেটা ক্যাম্প শুধু ডেটা রিলেটেড বিষয় নিয়ে লেখালেখি করে বা কাজ করে ।

 

পেজ অথোরিটি:  গুগল যখন একটি পেজ কে গুণগত দিক থেকে অথোরিটি প্রদান করে তখন তাকে পেজ অথোরিটি বলে ।

 

কুকিজঃ   ইন্টারনেট কুকিজ হচ্ছে একগুচ্ছ ডাটা যা একটি ওয়েবসাইট থেকে পাঠানো হয় এবং ব্যবহারকারি ওয়েব ব্রাউজিংয়ের সময় এ্যালো অপশানের মাধ্যমে তা নিজের কম্পিউটার এ জমা রাখে ।কুকিং মাধ্যমে কুকি প্রদানকারী সাইট ব্যবহারকারীর সকল ব্রাউজিং হিস্ট্রি জানতে পারে ।

 

ড্রিপ মার্কেটিং:

ড্রিপ মার্কেটিং হলো একটি যোগাযোগ কৌশল যার মাধ্যমে পূর্ব লিখিত মেসেজ গ্রাহকদের পাঠানো হয়।যা ইমেইল মার্কেটিং এর মত ।অন্যান্য মিডিয়া ব্যবহার করেও এটা করা যায়।

অনেক সময় মোবাইল ফোনে নানা অফার বা মেসেজ পাই যা ডিপ মার্কেটিং এর অংশ।

 

আপসেলিং এমন একটি বিক্রয় কৌশল যা একজন বিক্রয়কারী আরও বেশি লাভজনক বিক্রয় করার চেষ্টায় গ্রাহককে আরও ব্যয়বহুল আইটেম বা  আপগ্রেড পণ্য ক্রয় করতে প্ররোচিত করে।

যেমনঃকেউ ব্যাট কিনলে তার কাছে যদি বল বিক্রি করা হয় তবে তা আপসেলিং হিসেবে বিবেচিত হবে ।

 

ক্রস সেলিংঃ   একটি পণ্যের সাথে যখন সম্পর্কিত আরো একটি পণ্য অফার করা হয়,তখন তাকে ক্রস সেলিং বলে ।

যেমনঃমোবাইলের সংগে মোবাইলের কভার বিক্রি ।

 

A/B টেস্টিং হচ্ছে দুইটি ভ্যারিএবলের মধ্যে কোন টি ভাল কাজ করে তা জানা ।যেমন দুইটি মোবাইল ফোন বা এ্যাড এর মধ্যে কোনটি ভাল কাজ করে তা নির্নয় করার জন্য আমরা এ বি টেস্টিং ব্যবহার করতে পারি ।

Adwords: গুগলের একটি বিজ্ঞাপন প্লাটফর্ম ।

Alt text:   ছবিতে যে টেক্সট ব্যবহার করা হয় ,তাকে অলটাএনেটিভ টেক্সট বলে ।

অ্যাফিলিয়েট:   অফিসিয়ালি যখন একজন ব্যক্তি বা প্রতিষ্টান  অন্য একটি প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত হয় ,তখন তাকে অ্যাফিলিয়েট বলে ।

অ্যানালিটিক্সঃ  কোন কিছু কি ভাবে কাজ করে তা বের করাই মূলত অ্যানালিটিক্স।

Anchor Text:  ক্লিক যোগ্য হাইপারটেক্সট কে Anchor text বলে ।

API:  দুইটি ওয়েব সিস্টেমের ডাটা ব্যবহার করে,সিস্টেম দুইটি কে  একীভূত করাকে api বলে ।এটা অনেক টা একটি কমিউনিকেশন মাধ্যম।

বি টু বিঃ বিজনেস টু বিজনেস 

বি টু সিঃ বিজনেস টু কাস্টমার ।

যখন একটি সাইট অন্য একটি সাইটকে রেফার করে সেটা ব্যাক লিংক ।

বাউন্স রেট হলো কত শতাংশ লোক সাইটে ঢুকে ,ব্রাউজ না করে বের হয়ে যায়।

যে লিংক গুলো বেশি দিন কাজ করে না ,তাদের ব্রকেন লিংক বলে । 

ব্র্যাডক্র্যাম্বস: ব্র্যাডক্র্যাম্বস হলো ইন্টারনাল লিংকের সারি যেটা একটি পেজের উপরে বা নিচে থাকে । যার মাধ্যমে কাংখিত পেজে সহজে ব্রাউজিং করা যায় ।

 

Customer Acquisition Cost (CAC):  কোন পণ্য বা সেবা ক্রেতাকে ক্রয় করানোর জন্য বা প্ররোচিত করার জন্য যে ব্যয় হয় ,তাকে Customer Acquisition Cost (CAC) বলে ।

Cache: Cache হচ্ছে হার্ড ওয়্যার বা সফট এর উপাদান যেখানে তথ্য জমা থাকে ,এবং যেখান থেকে প্রয়োজন মত ডেটা সরবরাহ করা হয়।

Canonical tag  এটি একটি শক্তিশালী উপায় যার মাধ্যমে সার্চ ইঞ্জিন কে জানানো হয় যে কোন পেজ কে আমরা ইনডেক্স করতে চাই ।

 

CAPTCHA:  মানুষ এবং রোবট এর মধ্যে পার্থক্য নির্নয় করার জন্য ক্যাপচা ব্যবহার করা হয় ।

Churn:   কাস্টমার যখন কোম্পানীর সাথে সম্পর্ক শেষ করে ফেলে তখন তাকে চার্ন বলে ।

Clickbait:     ক্লিক বিট একটি মিথ্যা বিজ্ঞাপনের রুপ যেখানে হাইপারটেক্সট বা থামলিন ডিজাইন ব্যবহার করে কোন কিছু পড়তে দেখতে বা ব্যবহার করতে প্ররোচিত করা হয় ।

 Click-Through Rate (CTR):   মোট ইম্পেশান এর মধ্যে কত শতাংশ এ্যাডে ক্লিক করল তার পরিমাণ কে Click Trough Rate বলে ।

CTR    =Total Measured Ad Impressions/

Total Measured Clicks*১০০

A Content Management System (CMS):     হলো একটি সফটওয়্যার আপ্লিকেশন যেটা  কন্টেন্ট মেনেজমেন্ট এবং মডিফায়িং এর জন্য ব্যবহার করা হয় ।

Content Curation:   এটি এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে যার মাধ্যমে অনলাইনে কন্টেন্ট খোজা হয় এবং সংগ্রহের পর তা একটি একটি ফরমে তৈরি করা হয় ।

A marketing tactic that encourages a customer to take a specific action

Conversion:   কনভারসন এমন একটি মার্কেটিং কৌশল যার মাধ্যমে কাস্টমার কে একটি নির্দিষ্ট কাজ বা এ্যাকশন গ্রহনের জন্য প্ররোচিত করা হয় ।

Cost Per Lead:   প্রতিটি লিড সংগ্রহের জন্য যে ব্যয় করা হয় তাকে Cost Per Lead বলে ।

CPM =Cost Per Mile= প্রতি হাজার এ্যাড ইর্ম্পেশান এর জন্য যে খরচ হয় ,তাকে CPM বলে।

Crawler:   এমন একটি প্রোগ্রাম সিস্টেম যার মাধ্যমে সাইটের পেজ ভিজিট এবং সকল তথ্য রিড করার জন্য ব্যবহার করা হয় ।যার মাধ্যমে সার্চ ইঞ্জিনে ইনডেক্স করা হয় ।

Customer Relationship Management (CRM):  এটি এমন একটি ব্যবস্থা যার মাধ্যমে বর্তমান এবং সম্ভাব্য সকল ক্রেতাদের সাথে সম্পর্ক বজায় রাখার জন্য ব্যবহার করা হয় ।

A Conversion Rate Optimization (CRO):  এটি এমন একটি কৌশল যার মাধ্যমে মার্কেটিং ফানেলের প্রতিটি স্টেজ অপটিমাইজ করা হয় ।

CALL TO ACTION (CTA) :এমন একটি নির্দেশনা যার মাধ্যমে  অডিয়েন্স ইমেডেটলি কোন কাজ করতে পারে ।

যেমন কল নাও বাটনের সাহায্যে ক্রেতা সহজে কল করে যোগাযোগ করতে পারে ।

Direct Tarrif :যাদের ওয়েব সাইটের ঠিকানা জানা আছে তারা সরাসরি ব্রাঊজারের মাধ্যমে ওয়েব সাইটে ঢুকতে পারে ।এরাই হলো Direct Tarfic.

Do Follow: Do follow এর মাধ্যমে সার্চ ইঞ্জিন কে বলে দেওয়া হয়  লিংক ফলো করতে ।

Duplicate Content: Duplicate content  হল সেই কন্টেন্ট যে গুলো ইন্টারনেটে একাধিক জায়গায় প্রদর্শিত হয় ।

No Follow Link:    নো ফলো লিংক হলো সেই সেই লিংকগুলো যে লিংকগুলোকে গুগল ব্যাক লিংক হিসাবে কাউন্ট করে না ।যে সাইটে এমন ধরনের লিংক থাকে সেই সাইট থেকেই জানায় দেওয়া হয় যে লিংক টি তাদের সাথে সংশ্লিষ্ট নয় ।

নো ফলো লিংকের অন্যতম একটি উদাহরণ দেখা ওয়েবসাইটের কমেন্ট বক্স এ অনেকে কমেন্ট করতে গিয়ে নিজেদের লিংক দিয়ে আসে ।

Link juice:   লিংক জুস হচ্ছে এস ই ও তে একটি গুরুত্বপূর্ণ শব্দ যা দ্বারা একটি ওয়েব সাইট থেকে আরেক ওয়েব সাইটে ভ্যালু বা গুরুত্ব প্রদান করা হয় ।গুগল এটাকে ভোট হিসাবে ভাবে ।

মূল কথা অন্য ওয়েব সাইট  যখন আপনার সাইটকে গুরুত্ব প্রদান করে তা লিংক জুস হিসাবে বিবেচিত হয় ।

Dwell time:   এটা সেশনের মত ।Dwell time এ টাইম লিমিট থাকে না কিন্ত সেশানে টাইম লাইন থাকে ।

Author

Write A Comment