ডিম-আগে-না-মুরগি-আগে?

 

ডিম-আগে-না-মুরগি-আগে,বাংলাদেশে ইকর্মাস বা অনলাইনের যে কোন ব্যবস্যা যতটুকু আগিয়েছে বা জনপ্রিয়তা পেয়েছে তার সিংহ ভাগ কৃতিত্ব ই ক্যাবের।তারপর ও আমার কেন জানি মনে হয় অন্যান্য দেশের তুলনায় আমাদের দেশের ইকর্মাস স্টার্ট আপগুলোর গ্রোথ একটু ধীর গতির।দীর্ঘ দিন যাবত ইকর্মাস কাজ করার সুবাদে কয়েকটি কারণ কে আমার উল্লেখযোগ্য মনে হয়েছে।

ইনভেস্টমেন্টঃ

বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় যথেষ্ট পরিমাণ ক্যাপিটাল না থাকায় হয় বন্ধ হয়ে যায় অথবা কোন রকমে ধুকে ধুকে চলে ।যারা ইনভেস্ট করে তাদের খুব সংখ্যক ্সঠিক সময়ে সঠিক জায়গায় করছে।

লক্ষ্যঃ

যেহেতু ছোট বা মাঝারি সাইজের ই কর্মাস স্টার্ট আপগুলো শুরু হয় হুট করে হুজুগে মাতাল হয়ে বা কারো কাছে গল্প শুনে।তাই তেমন কোন বিজনেস গোল থাকে না ।কারণ তাদের পর্যাপ্ত পরিমাণ বিজনেস জ্ঞান বা প্রশিক্ষন থাকেনা বা ইছা থাকলেও সুযোগ থাকে না ।ফলে তাদের বিজনেসে একটি পরিচ্ছন্ন গোল থাকে না ।

সময় :

এখনো পর্যন্ত ই কর্মাস কে সলিড ক্যারিয়ার হিসেবে খুব কম সংখ্যক মানুষ ভাবতে পারছে ।বেশির ভাগই পড়াশোনা বা চাকরির পাশাপাশি আর মেয়েরা সংসার সাম্লানোর পাশাপাশি ই কর্মাস করছে।এর মধ্যেও অনেকে ভাল করছে।এমতবস্থায় হয়ত কোন কিছুর আংশিক শেখা যেতে পারে কিন্ত ব্যাবসা খুবই দুরহ ব্যাপার।বিজনেস ইজ নট পার্ট টাইম।

মার্কেটিং স্ট্রাটেজিঃ

এটার সাথে উপরের তিনটি বিষয়েই সরাসরি সংযোগ রয়েছে।লক্ষ্য না থাকলে যেমন আপনি কখনই মার্কেটিং কৌশল নির্ধারন করতে পারবেন না ,ঠিক তেমনি বিনিয়োগ ছাড়া কোন কৌশলই বাস্তবায়ন করতে পারবেন না ,আর এই কৌশল নির্ধারণে আপনার বা আপনার টিমের দিন রাত এক হয়ে যাবে ।কখন কোথাইয় কিভাবে আপনার ভোক্তা খুজে পাবেন ,কিভাবে তাদের সন্তষ্টি করবেন বা কিভাবে তাদের রিপিট বায়ারে পরিনত করবেন ।

একাই একশোঃ

এই শব্দটার জন্য আশা করি ,মনে কষ্ট নিবেন না ।অধিকাংশ দেশি উদ্যেক্তার ক্ষেত্রেই এই মনোভাব দেখা যায়।বিজনেসের ভাষায় এটাকে DIY(DO IT YOURSELF) বলে।কিন্ত প্রকৃত পক্ষে এই মনোভাব আপনার বিজনেস গ্রোথ কে স্লো করে  ফেলে।আপনি যখন চাকরি করেন তখন একটি সুনির্দিষ্ট দায়িত্ব বর্তায় আপনার উপর কিন্ত ব্যবসা তেরি হয় বা সফল হয় হাজার হাজার দায়িত্বের সমন্বয়ে।সুতরাং আপনার একার পক্ষে সব খুটিনাটি বিষয় পালন করে সফল ব্যবসা করা সম্ভব না ।এই ধরনের মনোভাবের কারনেই একই সময়ে শুরু করা দেশি উদ্দ্যেক্তাগ্ণ নির্ভর হয়ে পড়ে ফেসবুকের উপর,হয়ত সেল পাই,কিন্ত বিজনেস গ্রোথ শুন্য অন্য দিক থেকে বিদেশি উদ্দ্যেক্তা গণ ফিচারড হচ্ছে বিজনেস পেজের প্রথম পাতায়। 

ডিম-আগে-না-মুরগি-আগে?কি করতে হবে?

আজ যেহেতু ইকর্মাস নিয়ে কথা বলছি ই কর্মাসের ছোট কিন্ত গুরুত্বপূর্ণ অংশ ক্যাটালগ ম্যানেজমেন্ট নিয়ে কথা বলব।আছা ধরুন আপনি একজন ছাত্র এবং ইকর্মাস ব্যবসায়ী এই সপ্তাহে আপনার কিছু প্রোডাক্ট ডেলিভারি আছে ,সোর্সিং ও করতে হবে নতুন কিছু প্রোডাক্ট তারপর আপলোড ও মার্কেটিং,হয়ত মিড টার্ম পরিক্ষা আছে খুব কাছাকাছি এমত অবস্থায় কি করবেন।পণ্য বা মার্কেট রিসার্চ,পণ্য আপলোড,ইমেজ প্রসেসিং ,বর্ণনা,টাইটেল, এস ই ও এই গুলো শুনতে খুব একটা ঝামেলা না হলেও এই গুলো সম্পূর্ণ  করার জন্য বিরাট একটি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যেতে হয়।

এই গুলো সব গুছিয়ে আপনি একাই করতে পারবেন নাকি কোন রকম লামছাম দিয়ে ফেসবুকে বুস্ট মারবেন আর বলবেন সেল নাই, বাংলাদেশে ইকর্মাস ব্যবসা হবেনা।এই সব করে ,চাকরির পাশাপাশি ব্যবসা সামলানো খুব কষ্টকর , তাদের উপরের ঝামেলাতো  আছেই সাথে ওয়েব ম্যানেজমেন্ট।সোশাল মিডিয়া।আয় ব্যয়,ও রেগুলার রির্পোট এনালাইসিস রয়েছেই।এর সাথে বিষ ফোড়া হয়ে যোগ হয় বসের ঝাড়ি ,সংসারের নানা ঝামেলা, রোগ শোক  মোটামুটি একটি আউলা ঝাউলা অবস্থা।

এই অবস্থায় বেশির ভাগই উদ্দ্যেক্তাই সঠিক কাজটি সঠিক সময়ে করতে পারে না ।এই সপ্তাহের কাজ আরেক সপ্তাহে ,পরের টা তারপরে এভাবে তারা পিছিয়ে যায় ।এভাবে পিছিয়ে পিছিয়ে বিজনেস কমে যায় ।হয়ত এই সুযোগে আপনার প্রতিযোগি ধরে নিচ্ছে আপনার জায়গাটা।আপনার দেখানো পথে সফল হচ্ছে অন্য কেউ।আর আপনি চলে যাচ্ছেন তলানিতে।

আর বর্তমান সময়ে বিজনেস অত্যন্ত প্রতিযোগিতাপূর্ণ আপনার অসম্পূর্ণ কাজ অন্য যে কেউ করে ফেলবে হুট করে ।অনেকেই টাকা নিয়ে আইডিয়া খুজে ।তাই যারা ইকর্মাস করছেন আপনার অবস্থান ধরে রাখার জন্য অবশ্যই নতুন করে ভাবতে হবে ।ব্যবসা একটা মহাসাগরের মত এর শাখা প্রশাখার শেষ নেই ।সব কাজ আপনি একা করতে পারবেন না ।আপনাকে কোন একজন এক্সপার্ট বা এজেন্সির সাহায্য নিতে হবে ।মাঝারি ইকমার্সের ক্ষেত্রে ক্যাটালগ ম্যানেজমেন্ট বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ।এর অনেক গুলো ধাপ আছে সব গুলো সচারুভাবে করতে অবশ্যই এক্সটারনাল হেল্প দরকার।তা না হলে আপনার সব সেক্টর সমানভাবে শক্তিশালী হবে না ।একটা দক্ষ টিমও  প্রয়োজন ।

তবে তার থেকে কোন এজেন্সি থেকে সেবা গুলো নিতে পারলে হয়ত খরচ অনেক কমে যাবে।অনেকে হয়ত বলবেন না এখনি নয়,আমার মাসিক মুনাফা বিশ হাজার আর আমি করে সেবাদানকারী প্রতিষ্টান হায়ার করবো।এই কথাই মাথায় রেখেই শিরোনাম ডিম আগে না মুরগি আগে?ডিম খেতে চাইলে মুরগির যত্ন নিতেই হবে ।আর ইকর্মাস এমন এক মুরগি যা আপনাকে সারা জীবন ডিম দিবে।সঠিক ভাবে যত্ন নিতে পারলে সময়ে সময়ে এর ডিমের সংখ্যা এত বাড়বে যে আপনি চিন্তাও করেন নি।সুতরাং সিন্ধান্ত আপনার মুরগিকে শক্তিশালি দেখতে চান নাকি ঝিমিয়ে ঝিমিয়ে বাচাবেন।

তবে সব কথার শেষ কথা ব্যবসায়ীরা সময় করে মাঝে মাঝে অবশ্যই বিজনেস ট্রেনিং ও ইনভেস্টমেন্ট ট্রেনিং করবেন এবংযথেষ্ট পড়াশোনা করে ভাবিয়া আগানোর চেষ্টা করা  ভালো।তাহলে সঠিক সময়ে সঠিক সিন্ধান্ত ও ইনভেস্ট কালেক্ট করাও সহজ হয়ে যাবে আপনার জন্য। তখন ব্যবসায়ের প্রয়োজনে সেবাদান কারি প্রতিষ্ঠান হায়ার বা অন্য যে কোন কষ্ট কাভার করতে পারবেন।তবে একবার শুরু করে টাকার অভাবে থেমে গেলে বা স্লো হয়ে গেলে এটা নিশ্চিত যে আপনার উপর দিয়ে অন্য কেউ হেটে চলে যাবে।

বিস্তারিত জানতে আমাদের টিমের সাথে যোগাযোগ করুন 

Author

Write A Comment